বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:২২ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
সর্বশেষ :
সাড়ে ৪ ঘণ্টা আগে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু ২৪ বছর পর থামলো ব্রাজিলের রেকর্ডযাত্রা ইতিহাস গড়া গোল করে কেন লাল কার্ড দেখলেন আবুবাকার? ‘দ্বিতীয়’ ব্রাজিল জিততে পারল না ব্রাজিলকে হারিয়েও হতাশায় পুড়ল ক্যামেরুন ‘ইপাসি’ দেওয়ালে প্রথমার্ধে দুঃস্বপ্ন ব্রাজিলের ঢাবিতে গাড়ির ধাক্কায় নারীর মৃত্যু নিরাপদ ক্যাম্পাস দাবিতে বিক্ষোভ রোনালদোদের হারিয়ে কোরিয়ার উৎসব চোখের জলে সুয়ারেজ-কাভানিদের বিদায় আইপিএলের নিলামে সাকিব-মোস্তাফিজসহ ৬ বাংলাদেশি রাজশাহীতে পৌঁছালেন মির্জা ফখরুল মিসেস এশিয়া বাংলাদেশের আয়োজকদের বিরুদ্ধে অর্থ নেওয়ার অভিযোগ প্রতিযোগী রাহা’র সুন্দরী প্রতিযোগিতার আয়োজকদের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আমাকে শারীরিক, মানসিক ও আর্থিক-সব দিকেই টর্চার করেছে: সারিকা প্রবাসীর স্ত্রীর কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগ
ছেলের নির্যাতনের ভয়ে ছয় মাস ধরে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বাবা-মা

ছেলের নির্যাতনের ভয়ে ছয় মাস ধরে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বাবা-মা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রংপুরের পীরগাছায় মাদক ব্যবসায়ী ছেলের কয়েক দফা নির্যাতনের শিকার হয়ে ছয় মাস ধরে ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন কাজী আব্দুস সাত্তার ও তার স্ত্রী রোকেয়া বেগম।

নির্যাতনের শিকার বাবা জানান, গত ২৪ জুলাই থেকে অসহায় এ দম্পতি নিজ বাড়িতে যেতে পারছেন না। ছেলে মামুনুর ইসলাম শান্তর বিরুদ্ধে পীরগাছা থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি এবং আদালতে বাবার দায়ের করা সিআর মামলায় ওয়ারেন্ট থাকলেও পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারছে না।

জানা যায়, উপজেলার মকরমপুর গ্রামের কাজী আব্দুস সাত্তারের দুই ছেলে ও ছয় মেয়ের মধ্যে বড়ো ছেলে প্রবাসী। মেয়েদের বিয়ে দিয়েছেন। ছোট ছেলে মামুনুর ইসলাম শান্তকে নিয়ে চলছিল তাদের সংসার। গত দুই বছর থেকে শান্ত অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িয়ে পড়েন। প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া একের পর এক বিয়ে ও মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন শান্ত। এ নিয়ে বাবা কাজী আব্দুস সাত্তার ও মা রোকেয়া বেগম প্রতিবাদ করলেই শুরু হয় শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন। বাবা-মাকে নির্যাতন করে বাড়িতে গড়ে তোলে মাদকের আঁখড়া।

গত ১৬ মে বৃদ্ধ বাবা-মাকে হাত-পা বেঁধে বদ্ধ ঘরে আগুন লাগিয়ে পুড়ে মারার চেষ্টা করলে এলাকাবাসীর পুলিশে খবর দিয়ে তাদের উদ্ধার করে। কিছুদিন পর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ তাকে ৪৭টি ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠায়। ওই মামলায় জামিনে ছাড়া পেয়ে আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেন শান্ত। বাবা-মার উপর শুরু করেন অমানষিক নির্যাতন। এক পর্যায়ে গত ২৪ জুলাই বৃদ্ধ বাবা-মাকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে হত্যার চেষ্টা করলে কৌশলে পালিয়ে যান তারা।

এ বিষয়ে ইউএনও’র কাছে অভিযোগ দিয়েও কোনো কাজ না হওয়ায় আদালতে ছেলে বিরুদ্ধে মামলা করেন আব্দুস সাত্তার। পরে মাদক ও বাবার করা মামলায় শান্তর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। তবে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি। ফলে দীর্ঘ পাঁচ মাস ধরে মাদক ব্যবসায়ী ছেলের ভয়ে বাড়ি-ঘর ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন তারা।

মকরমপুর গ্রামের কয়েকজন বাসিন্দা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, শান্ত সারাদিন এলাকাতেই থাকেন। সে এখনো মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। পীরগাছা থানার ওসি আজিজুল ইসলাম বলেন, তাকে গ্রেফতারে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

এজেড এন বিডি ২৪/হাসান

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

One response to “ছেলের নির্যাতনের ভয়ে ছয় মাস ধরে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বাবা-মা”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *