সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০২:২৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
রংপুরে ভুয়া চিকিৎসক ও নকল সুরক্ষাসামগ্রী তৈরি সিন্ডিকেট বেপরোয়া

রংপুরে ভুয়া চিকিৎসক ও নকল সুরক্ষাসামগ্রী তৈরি সিন্ডিকেট বেপরোয়া

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ করোনা দুর্যোগে নকল সুরক্ষাসামগ্রী তৈরি ও ভুয়া চিকিৎসক  সিন্ডিকেট বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। করোনাকালে বাড়িতেই তৈরি হচ্ছে নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার, ফ্লোর ক্লিনার, টাইলস পুডিং, ভিক্সলসহ বিভিন্ন পণ্য। অন্যদিকে নামি ডাক্তাররা রোগী না দেখার সুযোগে ভুয়া ডাক্তার সেজে অনেকেই প্রতারণা করছেন সাধারণ মানুষের সঙ্গে। সম্প্রতি ভুয়া ডাক্তার সিন্ডিকেটের ৭ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে মহানগর পুলিশ। নকল সুরক্ষাসামগ্রীর সিন্ডিকেটকে রুখতে  বুধবার রাতে নগরীর কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়েছে রংপুর মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

এ সময় মধ্য বাবুখাঁ এলাকার একটি বাড়ি ও বেতপট্টি মোড়ের দুটি দোকান থেকে সাড়ে তিন লাখ টাকার বিপুল পরিমাণ নকল পণ্য উদ্ধার করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জড়িত তিন ব্যক্তিকে ৩৫ হাজার টাকা অর্থদ- করা হয়। রংপুর মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি অ্যান্ড মিডিয়া) উত্তম প্রসাদ পাঠক জানান, নগরীর মধ্য বাবুখাঁ এলাকার মৃত আবদুল করিম মিয়ার ছেলে মোস্তাফিজার রহমানের বসতবাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ নকল স্যানিটাইজার, ভিক্সল টাইলস ক্লিনার, ভিক্সল টাইলস ক্লিনার তৈরির কেমিক্যাল, পাউডার, খালি বোতল, ড্রাম ও বোতলের গায়ে ব্যবহারের জন্য মজুদ করা স্টিকারসহ সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়।

এসব নকল সামগ্রীর অনুমানিক মূল্য দুই লাখ টাকা। মোস্তাফিজার রহমান নগরীর গোমস্তাপাড়ার আবু হোজাইফা ডিস্ট্রিবিউশনের স্বত্বাধিকারী। এ ছাড়া একই দিন সন্ধ্যায় নগরীর বেতপট্টি মোড়ের ধিরেন্দ্র নাথ সরকারের প্রতিষ্ঠান বেনকো হার্ডওয়ার এবং জাহিদ হোসেনের প্রতিষ্ঠান কালার কালেকশান হার্ডওয়ারে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নকল ভিক্সল উদ্ধার করা হয়। পরে অসাধু ওই তিন ব্যবসায়ীকে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আফরিন জাহানের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৩৫ হাজার টাকা অর্থদ  করাসহ অনাদায়ে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদ  প্রদান করা হয়।

একই সঙ্গে উদ্ধার করা নকল পণ্যসামগ্রী ধ্বংস করা হয়। এর আগে গত মঙ্গলবার নগরীর খাসবাগ এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ নকল স্যাভলন, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও হারপিক উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে সোমবার নগরীর মেডিকেল মোড় ধাপ এলাকায় ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক ও ভুয়া চিকিৎসক, ম্যানেজার, দালালসহ সাতজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে কোতোয়ালি থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ডিসি (ক্রাইম) কাজী মোত্তাকি ইবনু মিনান। নগরীর ধাপ এলাকায় হিউম্যান কেয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়ে এমবিবিএস, এফসিপিএস পাস বলে পরিচয় দেওয়া ভুয়া চিকিৎসককে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় উদ্ধার করা হয় নেমপ্লেট, এমবিবিএস ও এফসিপিএস লেখা প্যাড, মোটরসাইকেল, মোবাইল ফোন।

এজেড এন বিডি ২৪/ তন্নি

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24