সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০২:১৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে বাড়িওয়ালাদের অমানবিক আচরণ বন্ধে নোটিশ

স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে বাড়িওয়ালাদের অমানবিক আচরণ বন্ধে নোটিশ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ  করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলায় চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং তাদের জন্য বীমা সুবিধাসহ সরকার ঘোষিত অন্যান্য সুবিধা কীভাবে বাস্তবায়িত হবে তা নিয়ে একটি সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়নের নির্দেশনা চেয়ে সংশ্লিষ্টদের প্রতি লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

একই সঙ্গে নোটিশ পাওয়ার তিন কার্যদিবসের মধ্যে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সাথে বাড়িওয়ালাদের অযৌক্তিক ও অমানবিক আচরণ বন্ধ করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতেও বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) নাইটিংগেল মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হসপিটালের সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. ওবায়দুর রহমানের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তানজিম আল ইসলাম এ নোটিশ প্রেরণ করেন।

সরকারি ই-মেইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব, আইন মন্ত্রণালয় সচিব এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিবের সরকারি ই-মেইলে এ নোটিশ পাঠানো হয়।

বুধবার (১৫ এপ্রিল) করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে প্রথম একজন চিকিৎসক মৃত্যুবরণ করার পরিপ্রেক্ষিতে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বীমা আইনসহ বিভিন্ন বিষয়ে আইন ও বিধিমালা করতে এই নোটিশ।

নোটিশে বলা হয়, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী দেশের সরকারি-বেসরকারি চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা প্রাণঘাতি এ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সুস্থ করে তুলতে নিষ্ঠার সঙ্গে নিরলস চিকিৎসাসেবা প্রদান করে যাচ্ছেন।

প্রাণঘাতি এ করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে দেশের মানুষকে সুরক্ষা দিতে হলে বর্তমানে কর্মরত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের এ নিরলস চিকিৎসাসেবার কোনো বিকল্প নেই। যেহেতু করোনাভাইরাস একটি সংক্রামক রোগ, তাই পর্যাপ্ত পারসোনাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট (পিপিই) না থাকার কারণে করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবা প্রদান করতে গিয়ে অনেক চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরাও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পড়ছেন।

‘করোনায় আক্রান্ত হওয়ার এ ঝুঁকি নিয়ে যেখানে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা নিরলস চিকিৎসাসেবা প্রদান করে যাচ্ছেন, সেখানে পত্রপত্রিকা মারফত জানা যাচ্ছে, একদল বাড়িওয়ালা বর্তমান পরিস্থিতিতে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বাসা ছেড়ে দেয়ার মতো অযৌক্তিক ও অমানবিক নির্দেশ প্রদান করছেন।

এমনকি তাদের সাথে চরম দুর্ব্যবহার পর্যন্ত করছেন যা তাদেরকে মানসিকভাবে দুশ্চিন্তার মধ্যে ফেলে দিচ্ছে। অথচ প্রাণঘাতি করোনার এ পরিস্থিতিতে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের নিকট হতে নিরলস চিকিৎসাসেবা পেতে হলে তাদের মানসিকভাবে নির্ভার রাখাটা অত্যন্ত জরুরি।’

নোটিশে আরও বলা হয়, করোনাভাইরাস সংক্রামক রোগ হওয়ায় চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তার জন্য পর্যাপ্ত পারসোনাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট (পিপিই) অত্যন্ত জরুরি।

গত ২২ মার্চ চিকিৎসক ও নার্সদের দ্রুত পিপিই প্রদানের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট বিভাগ। তথাপিও, পর্যাপ্ত পিপিই না থাকার কারণে অনেক চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। এতে ওই আক্রান্ত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীর সংস্পর্শে আসা অন্যান্য চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরাও আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যাচ্ছে।

ইতোমধ্যে গত ১৫ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে প্রথম একজন চিকিৎসক মৃত্যুবরণ করেন। সরকারের পক্ষ থেকে আক্রান্ত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বীমার আওতায় আনার কথা বললেও তা কোন আইন বা নীতিমালার অধীন এবং কীভাবে বাস্তবায়ন হবে এখন পর্যন্ত কেউ জানে না। তাই এক্ষেত্রে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তার স্বার্থে একটি সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়ণের উদ্দোগ গ্রহণ করা অত্যন্ত জরুরি।

‘পত্রপত্রিকা মারফত প্রায়শই জানা যায় যে, আমাদের দেশে জনসংখ্যার অনুপাতে চিকিৎসক পর্যাপ্ত নেই। তাই প্রয়োজন অনুযায়ী এডহক ভিত্তিতে চিকিৎসক নিয়োগের ব্যবস্থা করে করোনার প্রাণঘাতি ছোবল থেকে দেশের জনগণকে রক্ষা করা অত্যন্ত জরুরি।’

তাই এ নোটিশ প্রাপ্তির তিন কার্যদিবসের মধ্যে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সাথে বাড়িওয়ালাদের উপরোক্ত অযৌক্তিক ও অমানবিক আচরণ বন্ধ করার ব্যবস্থা গ্রহণ, চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তার স্বার্থে একটি সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়ণের উদ্যোগ গ্রহণ এবং প্রয়োজনে এডহক ভিত্তিতে চিকিৎসক নিয়োগের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলা হয়েছে। অন্যথায়, হাইকোর্ট বিভাগে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা চেয়ে রিট দায়ের করা হবে বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়।

এজেড এন বিডি ২৪/ তন্নি

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24