সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ১২:৪৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
মাদরাসা শিক্ষকের ধর্ষণে গৃহকর্মী ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

মাদরাসা শিক্ষকের ধর্ষণে গৃহকর্মী ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ নেত্রকোনার দুর্গাপুরে এক মাদরাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে গৃহকর্মী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। এ তথ্য নিশ্চিত করেন দুর্গাপুর থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মীর মাহবুব।

ধর্ষক সাফীউল্লাহ বেলালী মধুয়াকোনা এ.ইউ আলিম মাদরাসার এবতেদায়ী ক্বারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত বলে নিশ্চিত করেছেন ওই প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল মো. আজিজুল ইসলাম। তিনি উপজেলার চন্ডিগর মধুয়াকোনা গ্রামের উসমান গণির ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সাফীউল্লাহ বেলালীর বাড়িতে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করতো ওই কিশোরী। এক বছর আগে তার বাবা ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। সেই সুযোগে বিয়ের প্রলোভনে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন এ শিক্ষক।

স্থানীয়রা জানায়, গত ১৮ আগস্ট সকাল ১০টার দিকে ধর্ষণের বিষয়টি জানাজানি হলে বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা করে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন তারা। কোনো উপায় না পেয়ে সোমবার রাতে মেয়েটির মা বাদী হয়ে দুর্গাপুর থানায় একটি অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে গতকাল রাত ২টার দিকে পুলিশ অভিযুক্ত ধর্ষক সাফিউল্লাহ ওরফে এমদাদ বেলালীকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে।

এ বিষয়ে ওসি মীর মাহবুব আরও জানান, অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাকে বিকেলে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এজেড এন বিডি ২৪/ রামিম

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24