রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৩০ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
সর্বশেষ :
সাড়ে ৪ ঘণ্টা আগে বিএনপির গণসমাবেশ শুরু ২৪ বছর পর থামলো ব্রাজিলের রেকর্ডযাত্রা ইতিহাস গড়া গোল করে কেন লাল কার্ড দেখলেন আবুবাকার? ‘দ্বিতীয়’ ব্রাজিল জিততে পারল না ব্রাজিলকে হারিয়েও হতাশায় পুড়ল ক্যামেরুন ‘ইপাসি’ দেওয়ালে প্রথমার্ধে দুঃস্বপ্ন ব্রাজিলের ঢাবিতে গাড়ির ধাক্কায় নারীর মৃত্যু নিরাপদ ক্যাম্পাস দাবিতে বিক্ষোভ রোনালদোদের হারিয়ে কোরিয়ার উৎসব চোখের জলে সুয়ারেজ-কাভানিদের বিদায় আইপিএলের নিলামে সাকিব-মোস্তাফিজসহ ৬ বাংলাদেশি রাজশাহীতে পৌঁছালেন মির্জা ফখরুল মিসেস এশিয়া বাংলাদেশের আয়োজকদের বিরুদ্ধে অর্থ নেওয়ার অভিযোগ প্রতিযোগী রাহা’র সুন্দরী প্রতিযোগিতার আয়োজকদের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আমাকে শারীরিক, মানসিক ও আর্থিক-সব দিকেই টর্চার করেছে: সারিকা প্রবাসীর স্ত্রীর কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগ
পাত্রপক্ষ ‘সস্তা লেহেঙ্গা’ দেওয়ায় বিয়ে ভেঙে দিলেন কনে

পাত্রপক্ষ ‘সস্তা লেহেঙ্গা’ দেওয়ায় বিয়ে ভেঙে দিলেন কনে

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ হবু শ্বশুরবাড়ি থেকে কম দামি লেহেঙ্গা দেওয়ার অভিযোগে বিয়ে ভেঙে দিয়েছেন কনে। পছন্দমতো পোশাক কিনে নিলে টাকা দিয়ে দেওয়া হবে বলেও মন গলানো যায়নি তার। শেষপর্যন্ত বাতিল করতে হয়েছে সব আয়োজন। সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের হালদোওয়ানি গ্রামে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর খবরে জানা যায়, গত জুন মাসে বাগদান হয়েছিল ওই যুগলের। ৫ নভেম্বর ছিল বিয়ের নির্ধারিত দিন। এ কারণে জোরকদমে চলছিল বিয়ের প্রস্তুতি। বিয়ের কার্ড ছাপানো, অতিথিদের নিমন্ত্রণ- প্রায় সবই হয়ে গিয়েছিল। এর মধ্যেই হঠাৎ বেঁকে বসেন কনে। স্পষ্ট জানিয়ে দেন এই বিয়ে তিনি করবেন না।

হবু বউয়ের সিদ্ধান্তে অবাক হয়ে যান সবাই। কারণ বিয়ে নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই যথেষ্ট উত্তেজিত ছিলেন তরুণী। তাহলে শেষ মুহূর্তে বেঁকে বসা কেন?

ঘটনা হলো, বৌভাতের সন্ধ্যায় পরার জন্য হবু শ্বশুরবাড়ির পক্ষ থেকে একটি লেহেঙ্গা দেওয়া হয়েছিল কনেকে। তার অভিযোগ, লেহেঙ্গাটির দাম মাত্র ১০ হাজার রুপি এবং মানও ভালো নয়। এ নিয়েই আপত্তি জানান তিনি।

তবে পাত্রপক্ষের দাবি, লখনউয়ের একটি প্রসিদ্ধ পোশাকের দোকান থেকে বেশ দাম দিয়েই কেনা হয়েছে লেহেঙ্গাটি। তারপরও পছন্দ না হলে কনের মনমতো লেহেঙ্গা কিনে নিলে টাকা দিয়ে দেওয়া হবে বলে প্রস্তাব দেন তারা। তারপরও মন গলেনি তরুণীর।

এ নিয়ে দুই পক্ষের উত্তপ্ত বাদানুবাদের জেরে খবর দেওয়া হয় কোতয়ালি থানার পুলিশকে। তবে মামলা বা বিচার-সালিশ পর্যন্ত যেতে হয়নি। বিয়ে ভেঙে দিয়েই ক্ষান্ত দিয়েছে উভয় পক্ষ।

এজেড এন বিডি ২৪/হাসান

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *