সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ১২:৫০ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
শাওন বললেন- আজকে আমার মন ভালো

শাওন বললেন- আজকে আমার মন ভালো

অনলাইন ডেস্কঃ বাংলাদেশের বুকে সবচেয়ে বড় অবকাঠামোর নাম পদ্মাসেতু। এই সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন দেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী, নির্মাতা ও গায়িকা মেহের আফরোজ শাওন।

গত রোববার (২৬ জুন) ভোর ৬টা থেকে যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হলে সঙ্গীদের নিয়ে পদ্মাসেতুতে ঘুরতে যান শাওন। এ সময় বেশ কিছু ছবিও তুলেন তিনি। এদিন রাতে সেখান থেকে কয়েকটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে শাওন লিখেছেন, আজকে আমার মন (খুউউউব) ভালো। আমাদের পদ্মাসেতু। জয় বাংলা। ছবিতে তাকে বেশ উচ্ছ্বসিত দেখাচ্ছে।

এর আগে শনিবার (২৫ জুন) দীর্ঘ এক স্ট্যাটাসে শাওন জানান, স্বাধীনতার পর এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অর্জন পদ্মাসেতু। স্বাধীনতা পরবর্তী প্রজন্মের এই আমরা ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭১ এর ইতিহাসের সাক্ষী হতে পারিনি। কিন্তু আজ স্বাধীনতার ৫০ বছর পর দেশি-বিদেশি বিভিন্ন গোষ্ঠীর নানান ষড়যন্ত্র এবং অবিশ্বাসকে চ্যালেঞ্জ করে প্রমত্তা পদ্মার বুকে স্বপ্নের সেতু যখন মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে নিজের গর্বিত অস্তিত্বের জানান দেয়, তখন বাঙালি হিসেবে, বাংলাদেশের একজন সৎ করদাতা নাগরিক হিসাবে আমি গর্বিত হই। মুক্তিযুদ্ধ না দেখা এই অভাগা প্রজন্মের আমি অন্য এক যুদ্ধ জয়ের আনন্দ পাই।

তিনি আরো লিখেছেন, বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের অহংকারের নতুন প্রতীক স্বপ্নের এই পদ্মাসেতু নির্মিত হয়েছে আমাদের নিজেদের অর্থায়নে- কারও কাছে মাথা নত করতে হয়নি আমাদের। আমাদের সন্তান পদ্মাসেতুর নির্মাণকাল দেখেছে। একের পর এক সেতুর ৪২টি পিলার তৈরি হয়েছে, ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১ টি স্প্যান বসেছে, উদ্বোধন হয়েছে আমাদের সময়েই। এই ইতিহাসের সাক্ষী হতে পেরে আমি গর্বিত, আনন্দিত, সৌভাগ্যবান।

শেখ হাসিনার বীরত্বের কথা স্মরণ করে শাওন লেখেন, আমি মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি, আমি পদ্মাসেতুর নির্মাণকাল দেখেছি। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার জেদ দেখেছি, দৃঢ় প্রত্যয় দেখেছি। পদ্মা সেতুর পর্যায়ক্রম নির্মাণে তার ছেলেমানুষি, আনন্দ দেখেছি। সেতুর উদ্বোধনকালে তার চোখে আনন্দঅশ্রু দেখেছি। তার নেতৃত্বে সকল মিথ্যার বিরুদ্ধে পদ্মা সেতুর জয় দেখেছি। সমগ্র বাংলাদেশের জয় দেখেছি।

পদ্মাসেতুতে তোলা ছবি এখানেই শেষ নয়, সামনে আরও ছবি দেখা যাবে- এ ইঙ্গিত দিয়ে শাওন লিখেছেন, আগামীতে আরও বহুদিন পদ্মাসেতুর ছবি, পদ্মাসেতুর সামনের ছবি, সেতুর ওপর দিয়ে দক্ষিণাঞ্চলে ভ্রমণ ইত্যাদি বিষয়ে পোস্ট করে আমার ফেসবুক ওয়াল ভরিয়ে ফেলব। আমার যাকে তেল দিতে ইচ্ছা করে তেল দেব।

এজেড এন বিডি ২৪/ রেজা

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24