বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:০৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
শাকিব-অপুসহ চলচ্চিত্রে সরকারি অনুদান পেলেন যারা

শাকিব-অপুসহ চলচ্চিত্রে সরকারি অনুদান পেলেন যারা

অনলাইন ডেস্কঃ একসঙ্গে সরকারি অনুদান পেয়েছেন প্রাক্তন তারকা দম্পতি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। আলাদাভাবে প্রযোজক হিসেবে সিনেমা নির্মাণের জন্য তাদের এই অনুদান দেওয়া হয়েছে। বন্ধন বিশ্বাসের পরিচালনায় ‘লাল শাড়ি’ সিনেমার জন্য অপু বিশ্বাস পাচ্ছেন ৬৫ লাখ টাকা। আর হিমেল আশরাফের পরিচালনায় ‘মায়া’ সিনেমার জন্য শাকিব খানও একই পরিমাণ অর্থ অনুদান পাচ্ছেন।

জানা গেছে, শাকিব-অপুর সিনেমা ছাড়াও ২০২১-২২ অর্থ বছরে ১৯টি সিনেমাকে সরকারি অনুদান দেওয়া হয়েছে। বুধবার এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে সিনেমার নাম, পরিচালক ও প্রযোজকদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। একটি সিনেমার জন্য তারা কত টাকা করে পাবেন সেটাও জানানো হয়েছে প্রজ্ঞাপনে। এবারে মোট ১১ কোটি ৫২ লাখ টাকা ১৯টি সিনেমায় বিনিয়োগ করেছে সরকার।

অনুদান পাওয়া মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সিনেমাগুলো হলো ‘জয় বাংলার ধ্বনি’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক মো. খোরশেদুল আলম খন্দকারকে (খ.ম. খুরশীদ)  ৬০ লাখ টাকা। ‘একাত্তর-করতলে ছিন্নমাথা’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক রফিকুল আনোয়ারকে (রাসেল) ৬০ লাখ টাকা।

এছাড়া সাধারণ শাখায় ‘যুদ্ধজীবন’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক রিফাত মোস্তফাকে ৬৫ লাখ টাকা, ‘যাপিত জীবন’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক হাবিবুল ইসলাম হাবিবকে ৬০ লাখ টাকা, ‘বনলতা সেন’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক মাসুদ হাসান উজ্জ্বলকে ৭০ লাখ টাকা, ‘অতঃপর রোকেয়া’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক মিস শামীম আখতারকে ৬০ লাখ টাকা. ‘১৯৬৯’ ছবির জন্য প্রযোজক মাহজাবিন রেজা চৌধুরী ও পরিচালক অমিতাভ রেজা চৌধুরীকে ৭৫ লাখ টাকা, ‘বঙ্গবন্ধুর রেণু’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক মারুফা আক্তার পপিকে ৭০ লাখ টাকা, রেজা ঘটক পরিচালিত ‘ডোডো’র গল্প’ (Story of Dodo) ছবির জন্য প্রযোজক নাজমুল হক ভুঁইয়াকে ৬০ লাখ টাকা, মাসুদ মহিউদ্দিন ও মাহমুদুল হাসান শিকদার পরিচালনায় ‘বকুল কথা’ ছবির জন্য প্রযোজক সঞ্জিত কুমার সরকারকে ৭০ লাখ টাকা, ‘আর্জি’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক কামাল মোহাম্মদ কিবরিয়াকে ৬০ লাখ, ‘এইতো জীবন’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক সৈয়দ আলী হায়দার রিজভীকে ৭০ লাখ টাকা, ‘আহারেজীবন’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক সৈয়দ উদ্দিন আহমেদ ওরফে ছটকু আহমেদকে ৬০ লাখ, রতন কুমার পালের পরিচালনায় ‘অন্তরখোলা’ ছবির জন্য প্রযোজক সারা যাকেরকে ৬০ লাখ টাকা, ‘ভাষার জন্য মমতাজ’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক সরোয়ার তমিজউদ্দিনকে ৬০ লাখ, ‘লাল শাড়ি’ ছবির জন্য প্রযোজক অপু বিশ্বাসকে ৬৫ লাখ টাকা, ‘বিচারালয়’ ছবির জন্য প্রযোজক ও পরিচালক শরাফ আহমেদ জীবনকে ৬৫ লাখ টাকা, ‘মায়া’ ছবির প্রযোজক শাকিব খান রানাকে ৬৫ লাখ ও মাসউদ যাকারিয়া চৌধুরী ও আব্দুস সামাদ খোকনের পরিচালনায় ‘মুক্তির ছোট গল্প’ ছবির জন্য প্রযোজক মো. দৌলত হোসাইনকে ৬০ লাখ টাকা অনুদান দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, ১৯৭৬-৭৭ অর্থবছর থেকে দেশীয় চলচ্চিত্রে সরকারি এ অনুদান চালু করা হয়। মাঝে কয়েক বছর বাদে প্রতিবছরই অনুদান দেওয়া হচ্ছে। সেই ধারাবাহিকতায় ২০২১-২২ অর্থবছরে অনুদানপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রের নাম প্রকাশ করেছে তথ্য মন্ত্রণালয়।

এজেড এন বিডি ২৪/ রেজা 

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24