বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
বিডিনিউজ সম্পাদকের মামলা বাতিলের আবেদন শুনানি ১৪ জুন

বিডিনিউজ সম্পাদকের মামলা বাতিলের আবেদন শুনানি ১৪ জুন

অনলাইন ডেস্কঃ অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা বাতিল চেয়ে অনলাইন নিউজ পোর্টাল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদীর করা আবেদনের আংশিক শুনানি হয়েছে। পরবর্তী শুনানির জন্য আগামী মঙ্গলবার (১৪ জুন) দিন ঠিক করেছেন হাইকোর্ট। ওই দিন আসামিপক্ষের উত্থাপিত প্রশ্নের জবাব দেবে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মঙ্গলবার (৭ জুন) বিচারপতি এস এম আব্দুল মোবিন ও বিচারপতি মো. আতোয়ার রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ শুনানি হয়। আদালতে তৌফিক ইমরোজ খালিদীর পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী শফিক আহমেদ ও মাহবুব শফিক। দুদকের পক্ষে ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সুজিত চ্যাটার্জি বাপ্পী।

এ বিষয়ে সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদীর আইনজীবী মাহবুব শফিক বলেন, আমাদের পক্ষ থেকে বক্তব্য শেষ হয়েছে। এখন দুদক সময় নিয়েছে। আদালত আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত সময় দিয়েছেন।

তিনি বলেন, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরের যে শেয়ার ছিল তা এনআরবি গ্লোবাল কিনেছে। কিনার সময় শেয়ারপ্রতি দাম ধরেছে সাড়ে ১২ হাজার টাকা। সে হিসাবে ৪০ হাজার শেয়ার বিক্রি হয়েছে ৫০ কোটি টাকায়। আর এ শেয়ার বিক্রির টাকা অ্যাকাউন্ট টু অ্যাকাউন্ট ট্রান্সফার হয়েছে। সম্পাদক সাহেবের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন-২০০৫-এর ২৭ (১) ধারায়, যেখানে বলা হয়েছে জ্ঞাত আয়-বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের কথা। এ ক্ষেত্রে আমাদের প্রশ্ন হচ্ছে, একটি কোম্পানি যদি আরেকটি কোম্পানির শেয়ার কিনে আর সেই টাকা যদি অ্যাকাউন্ট টু অ্যাকাউন্ট ট্রান্সফার হয়ে অ্যাকাউন্টেই থেকে যায় তাহলে জ্ঞাত আয়-বহির্ভূত হওয়ার সুযোগ আছে কিনা?

দ্বিতীয় প্রশ্ন হলো— ১০ টাকার শেয়ার কেউ যদি ২০ টাকা দিয়েও কিনে সেখানে ওই প্রতিষ্ঠানের যদি কোনো আপত্তি না থাকে তাহলে সেখানে দুদকের আপত্তি তোলার কোনো সুযোগ আছে কিনা? এমন প্রশ্ন আমরা আদালতের কাছে রেখেছি। তারপর আদালত দুদককে ঢেকেছে। দুদক এসে জবাবের জন্য সময় চাইলে আদালত সময় দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপক্ষের সুজিত চ্যাটার্জি বাপ্পী আদালতে বলেন, দুদক মামলাটি তদন্ত করছে। চূড়ান্ত প্রতিবেদক জমা দেওয়ার আগে মামলা বাতিলের সুযোগ নেই।

দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান বলেন, আসামিপক্ষের বক্তব্যের জবাব আমরা আগামী মঙ্গলবার দেবো। এজন্য সময় নিয়েছি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদীর বিরুদ্ধে ৪২ কোটি টাকা জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০২০ সালের ৩০ জুলাই মামলা করে দুদক। অভিযোগে বলা হয়, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদী এইচএসবিসি ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, সাউথ ইস্ট ব্যাংক, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের বিভিন্ন হিসাবে ৪২ কোটি টাকা জমা রেখেছেন। যার বৈধ কোনো উৎস নেই। এ টাকা তিনি প্রতারণা মাধ্যমে ভুয়া কাগজপত্র সৃষ্টি করে অবৈধ প্রক্রিয়ায় অর্জন করেছেন মর্মে তথ্য-উপাত্তে প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে। এ মামলা বাতিল চেয়ে গত মাসে হাইকোর্টে আবেদন করেন তৌফিক ইমরোজ খালিদী।

এর আগে ২০২০ সালের ২৬ আগস্ট এ মামলায় খালিদীকে আট সপ্তাহের আগাম জামিন দেন হাইকোর্ট। পরে জামিন স্থগিত করে ৮ সেপ্টেম্বর আপিল দায়ের করে দুদক। কিন্তু আপিল বিভাগও তার জামিন বহাল রাখেন।

এর আগে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা বিশেষ জজ আদালত বিডিনিউজের ৯টি ও তৌফিক ইমরোজ খালিদীর নিজ নামে ১৩টি স্থায়ী আমানতের মোট ৪২ কোটি টাকা ফ্রিজের (অবরুদ্ধ) আদেশ দেন আদালত।

একই বছরের ২৬ নভেম্বর তাকে প্রায় পাঁচঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করে দুদক। ওই সময় অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে এল আর গ্লোবাল (এলআরজি) অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির সিইও রিয়াজ ইসলামকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এজেড এন বিডি ২৪/ রেজা

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24