রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৩৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
সিটি কর্পোরেশনের খোঁড়াখুঁড়িতে ধসে পড়ল জবির কর্মচারী ডরমিটরি

সিটি কর্পোরেশনের খোঁড়াখুঁড়িতে ধসে পড়ল জবির কর্মচারী ডরমিটরি

অনলাইন ডেস্কঃ ড্রেন নির্মাণের জন্য খোঁড়াখুঁড়ি করতে গিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) সীমানা প্রাচীর ও কর্মচারীদের ঘর ভেঙ্গে ফেলেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। এতে করে বিপাকে পড়েছে কর্মচারীরা। ঘর ভেঙে যাওয়ায় থাকা ও আসবাবপত্র সরানো নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন তারা।

সোমবার (৬ জুন) বিকাল ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। সরেজমিনে দেখা যায়, শাঁখারিবাজার রাস্তার পাশে ভেঙ্গে পড়ে আছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর ও কর্মচারীদের ডরমিটরির একাংশ। ড্রেনের পানিতে ঘরের আসবাবপত্র ডুবে আছে। সীমানা প্রাচীরের পাশে ড্রেনের খোঁড়াখুঁড়ির সময় এই ঘটনা ঘটে।

কর্মচারীরা জানান, সোমবার বিকালের দিকে দেয়াল ও ঘর ভেঙ্গে পড়ে। যখন ভেঙ্গে পড়ে তখন তারা কেউ ঘরে ছিল না, তাই হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে ড্রেনের পানিতে অনেক জিনিসপত্র পড়ে নষ্ট হয়ে গেছে। ভেঙ্গে গেছে ঘরের আসবাবপত্র। এছাড়াও বাকি জিনিসপত্র সরিয়ে নেওয়াও কঠিন হয়ে যাবে। রাতে কোথায় থাকব এটাও সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অতি দ্রুত কিছু না করলে সমস্যায় পড়ব আমরা।

এ বিষয়ে সিটি কর্পোরেশনের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোহাম্মদ প্যারিশ বলেন, বিষয়টি আমরা দেখেছি। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের লোকজনকে আসতে বলা হয়েছে। তারা আসলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই কাজের ঠিকাদার সোহেল মিয়া বলেন, আমরা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। দুই এক দিনের মধ্যে আমরা নতুন করে দেয়াল করে দিব।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল বলেন, সিটি কর্পোরেশন কাজ করতে গিয়ে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাচীরসহ কর্মচারীদের ঘর ভেঙ্গে ফেলেছে। আমরা সিটি কর্পোরেশনকে জানিয়েছি। তারা নিরাপত্তা হিসেবে আপাতত টিনের বেড়া লাগিয়ে দিবে। ধসে যাওয়ার সময় সবাই ঘরের বাইরে ছিল বলে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

সার্বিক বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হয়েছি। সিটি কর্পোরেশন টিনের বেড়া দিবে আপাতত। প্রাচীর নির্মাণের বিষয়েও কথা বলব আমরা।

এজেড এন বিডি ২৪/ রেজা

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24