সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৫:২১ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ

নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ

অনলাইন ডেস্কঃ নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে তরুণীকে হেনস্থার প্রতিবাদে ‘অহিংস অগ্নিযাত্রা’ নামে ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ জানিয়েছেন একদল তরুণ-তরুণী। প্রতিবাদের অংশ হিসেবে পছন্দমতো পোশাক পরে স্টেশনটিতে হাজির হন তারা।

শুক্রবার (২৭ মে) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কিশোরগঞ্জগামী আন্তঃনগর এগারসিন্দুর ট্রেন থেকে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে এসে নামেন তারা। দলটিতে অন্তত ১৫জন তরুণীর পরনে ছিলো টাইট জিন্স প্যান্ট ও টিশার্ট।

গত ১৮ মে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে একজন তরুণী পোশাকের কারণে হেনস্থার শিকার হন। যার প্রতিবাদ স্বরূপ এ কর্মসূচির আয়োজন করেন তারা। প্রতিবাদে অংশ নেয়া ১৭ তরুণী ও তিনজন তরুণ বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত। এই প্রতিবাদ কর্মসূচির সংগঠক ছিলেন অগ্নি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের সভাপতি তৃষিয়া নাশতারান।

নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশন সূত্রে জানা, ২ নম্বর প্ল্যাটফর্মে ট্রেন থেকে নামার পর তারা অপেক্ষমাণ যাত্রী ও ভ্রাম্যমাণ দোকানীদের সঙ্গে ওই দিনের ঘটনা সম্পর্কে জানতে চান। পরে তারা কয়েকটি উপদলে ভাগ হয়ে স্টেশনটির নানা প্রান্তে ঘোরেন। পরে স্টেশন মাস্টার এটিএম মুছার সঙ্গে বৈঠকে বসেন। এর আগে রেলওয়ে পুলিশ ও রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে ওই দিনের ঘটনা নিয়ে তারা কথা বলেন।

অগ্নি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের সভাপতি তৃষিয়া নাশতারান বলেন, ‘আমরা নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশন ও এখানকার মানুষদের দেখতে এসেছি। তাদের সঙ্গে আমরা মানবিক যোগাযোগ স্থাপন করতে চেয়েছি। আমাদের উদ্দেশ্য ছিলো, শান্তিপূর্ণভাবে শরীর ও পোশাকের স্বাধীনতার জায়গা রিক্লেইম করা।

নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনের মাস্টার এটিএম মুছা জানান, দলটি ঢাকা থেকে ট্রেনে করে আমাদের স্টেশনে এসে নেমেছেন। তারা স্টেশন ঘুরে দেখেছেন এবং এখানকার লোকজনের সঙ্গে কথা বলেছেন। আমার সঙ্গে তারা বসেছিলেন, জানতে চেয়েছেন ওই দিনের বিস্তারিত। আমিও তাদের ওই ঘটনার সর্বশেষ পরিস্থিতি জানিয়েছি। তারা তরুণী হেনস্থার প্রতিবাদ জানাতে এসেছেন বলে আমাকে জানিয়েছেন।

এর আগে গত ১৮ মে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে আসেন এক তরুণী ও দুই তরুণ। সকাল পৌনে ছয়টার দিকে স্টেশনটির ১ নম্বর প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে তারা ঢাকাগামী ঢাকা মেইল ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় স্টেশনে মধ্যবয়সী এক নারী ওই তরুণীকে জিজ্ঞাসা করেন, ‘এটা কী পোশাক পরেছো তুমি’। তরুণীও পাল্টা প্রশ্ন করেন, ‘আপনার তাতে সমস্যা কী’। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। এর মধ্যে সেই বিতর্কে যোগ দেন স্টেশনে অবস্থানরত কয়েকজন ব্যক্তি।

ভাইরাল ভিডিওটিতে দেখা যায়, ওই তরুণীকে ঘিরে রেখেছে একদল ব্যক্তি। এর মধ্যেই এক নারী উত্তেজিত অবস্থায় তার সঙ্গে কথা বলছেন। বয়স্ক এক ব্যক্তিও তার পোশাক নিয়ে কথা বলছেন। একপর্যায়ে ওই তরুণী সেখান থেকে চলে যেতে উদ্যত হলে ওই নারী দৌড়ে তাকে ধরে ফেলেন। এ সময় অশ্লীল গালিগালাজ করতে করতে তার পোশাক ধরে টান দেন ওই নারী। কোনো রকমে নিজেকে সামলে দৌড়ে স্টেশন মাস্টারের কক্ষে চলে যান তরুণী।

রেলওয়ে পুলিশ বলছে, সিসিটিভির ফুটেজ বিশ্লেষণ করে ২১ মে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনসংলগ্ন এলাকা থেকে ঘটনায় জড়িত মো. ইসমাইলকে আটক করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। পরে তাকে ভৈরব রেলওয়ে থানা-পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়।

এজেড এন বিডি ২৪/ রেজা

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24