রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৫৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
স্বপ্নের বাইক কিনতে ২ লাখ কয়েন, গুনতে লাগলো ১০ ঘণ্টা

স্বপ্নের বাইক কিনতে ২ লাখ কয়েন, গুনতে লাগলো ১০ ঘণ্টা

অনলাইন ডেস্কঃ মোটরসাইকেল কিনবেন। তাই শোরুমে হাজির তামিলনাড়ুর এক যুবক। সঙ্গে নিয়ে এসেছেন কয়েকজন বন্ধুকে। হাতে বালতি ভর্তি ১ রুপির কয়েন। এই কয়েন দিয়েই কিনবেন মোটরসাইকেল।

মোটরসাইকেলের দাম ২ লাখ ৬০ হাজার রুপি। যার পুরোটি কয়েন দিয়ে শোধ করতে চান ২৯ বছর বয়সী ভি ভুপাতি। যদিও প্রথম দিকে শোরুম ম্যানেজার এসব কয়েন নিতে রাজি ছিলেন না।

কিন্তু তিনি চিন্তা করে দেখলেন, এসব মুদ্রা তো সচল। তাই না নিয়ে উপায় নেই। শেষ পর্যন্ত ম্যানেজার রাজি হয়ে যান। আর সঙ্গে সঙ্গে ওই যুবকের সঙ্গে আসা বন্ধুরা মহা উৎসাহে শোরুমের মেঝেয় বালতি উপুড় করে দেন।

এরপর শোরুমের পাঁচ কর্মী ও ভি ভুপাতির চার বন্ধু মিলে এসব কয়েন গুনতে বসেন। টানা ১০ ঘণ্টায় তারা ২ লাখ ৬০ হাজার কয়েন গুনে শেষ করেন।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়, কয়েন গুনা শেষে শোরুম থেকে স্বপ্নের ‘বাজাজ ডমিনোর-৪০০’ মডেলের মোটরসাইকেল নিয়ে বাড়ি চলে যান যুবক।

ভারতের সংবাদ সংস্থা এএনআই টুইটারে ছবি শেয়ার করে জানায়, ভি ভুপাতি এই কয়েকনগুলো তিন বছর ধরে জমিয়েছেন।

এদিকে আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়, ওই যুবকের বাবা মারা গেছেন অনেক আগেই। আর তার মা ভিক্ষা করে সংসার চালান। কয়েকনগুলো মায়ের কাছ থেকে সংগ্রহ করে জমিয়েছেন।

ভুপাতি বলেন, অন্য সব কয়েন মা খরচ করেন। শুধু এক টাকার কয়েন করতে পারেন না। কারণ আমাদের এলাকায় এক টাকার কয়েন কেউ নিতে চায় না।

এই যুবক জানান, কলকাতার একটি ম্যানহোলের লোহার ঢাকনা তৈরির কারখানায় সামান্য বেতনে কাজ করেন তিনি।

এজেড এন বিডি ২৪/ রামিম

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24