রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ১০:৩২ অপরাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
বলাৎকারের অভিযোগে পীরগাছা থানার এসআই স্বপন রায় প্রত্যাহার

বলাৎকারের অভিযোগে পীরগাছা থানার এসআই স্বপন রায় প্রত্যাহার

অনলাইন ডেস্কঃ  এক ভ্যানচালককে বাসায় এনে বলাৎকারের অভিযোগে রংপুরের পীরগাছা থানার এসআই স্বপন কুমার রায়কে থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে। অসুস্থ ওই ভ্যানচালককে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করে পীরগঞ্জ থানার ওসি সরেষ চন্দ্র জানান, পুরো ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে। এসআই স্বপন রায়কে পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে। এছাড়াও তার ভাড়া বাসা থেকে ভুপতি রায় নামের আরো একজনকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, এসআই স্বপন রায়ের বাড়ি নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলায়। ২০ দিন আগে তার সন্তানসম্ভবা স্ত্রী ডেলিভারির জন্য গ্রামের বাড়িতে গেছেন। এই সুযোগে পীরগাছার কলেজ রোডে স্বর্ণব্যবসায়ী রিপন রায়ের ভাড়া বাড়িতে স্বপন রায় বিভিন্ন বয়সী পুরুষদের হুমকি দিয়ে আনতেন এবং তাদের বলাৎকার করতেন।

বুধবার রাতে উপজেলার শুখানপুকুর এলাকার এক ভ্যানচালককে (৫০) হুমকি দিয়ে ওই বাড়িতে নিয়ে যান এসআই স্বপন রায় এবং তাকে উপর্যুপরি বলাৎকার করেন। এক পর্যায়ে পায়ুপথ দিয়ে তার প্রচুর রক্তপাত হলে বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার রাতে ওই ভ্যানচালককে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। শুরুর দিকে বিষয়টি থামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হলেও তা ঢোপে টেকেনি।

এদিকে এ ঘটনার পর শুক্রবার বেলা ১১টায় এসআই স্বপন রায়ের ভাড়া বাসায় অভিযান চালায় পুলিশ। সেখান বাসার তালা ভেঙ্গে ভুপতি চন্দ্র রায় (৪৮) নামের আরো একজনকে উদ্ধার থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ ঘটনায় উপজেলা জুড়ে তোলপাড় চলছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই ভ্যানচালকর স্ত্রী জানান, ‘আমার সহজ-সরল স্বামীকে ভাড়ার কথা বলে বাড়িতে ডেকে নিয়ে তার সর্বনাশ করেছে পুলিশ স্বপন চন্দ্র। আমার স্বামী তার কাছ থেকে ছাড়া পাওয়ার চেষ্টা করেছে। কিন্তু কোনোভাবেই সে ছাড় দেয় নাই। আমি এর উপযুক্ত বিচার চাই।’

ওই ভ্যানচালকের ছেলে জানান, ‘পুলিশ আমার বৃদ্ধ বাবার ওপর যেভাবে পাশবিক নির্যাতন চালিয়েছে তা কোনো সভ্য সমাজে হতে পারে না। পুলিশ বলে সে যেন কোনোভাবেই পার না পায়। তাকে গ্রেফতার করে ফাঁসির দাবি জানাচ্ছি।’

এজেড এন বিডি ২৪/ রামিম

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24