সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৯:২৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
হার্ডিঞ্জ ব্রিজ থেকে ঢাবি শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার

হার্ডিঞ্জ ব্রিজ থেকে ঢাবি শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার

অনলাইন ডেস্কঃ পাবনার হার্ডিঞ্জ ব্রিজ থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক শিক্ষার্থীর ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত মো. মাহবুব আলম বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

কুষ্টিয়ার পোড়াদহ রেলওয়ে থানা সূত্রে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে গিয়ে মাহবুরের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। তিনি ঢাকা থেকে কুষ্টিয়ায় বেড়াতে যাচ্ছিলেন বলে তার ঘনিষ্ট বন্ধুদের থেকে জানা গেছে। মাহবুব বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজী মুহাম্মদ মুহসীন হলে সংযুক্ত।

তার বন্ধু ইমরান জানান, গতকাল বেলা ১১টায় আমার সাথে তার সর্বশেষ কথা হয়েছে। সে ট্যুরে যাবে বলে সন্ধ্যায় হল থেকে বেরিয়ে যায়। একটু আগে জানতে পেরেছি সে ট্রেনে করে যাওয়ার পথে মারা গেছে।

দুপুর একটার দিকে নিহতের ফেসবুক প্রোফাইলে গিয়ে দেখা যায়, তিনি ১০ ঘণ্টা আগে ফেসবুক ডে-তে ‘স্টোরি’ আপ্লোড করেছিলেন। সেখানে ট্রেনের ছাদে সদ্য পরিচয় হওয়া একজনের সাথে সেলফি তুলতে দেখা গেছে তাকে। ক্যাপশনে লেখা ‘অফ টু কুষ্টিয়া’ (কুষ্টিয়ার উদ্দেশে যাত্রা), কঠিন তবুও আনন্দঘন, মাঝপথে জুটেছিল অপরিচিত সঙ্গি’।

ঈশ্বরদী রেলওয়ে স্টেশনের স্টেশন মাস্টার সুমি জানান, তার আগের শিফটের ডিউটিরত স্টেশন মাস্টার হার্ডিঞ্চ ব্রিজের নিরাপত্তারক্ষীদের থেকে জানতে পারেন, সেখানে একটি লাশ পাওয়া গেছে। এরপর তিনি পোড়াদহ রেলওয়ে থানাকে জানান। পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশ এসে লাশ পোড়াদহ রেলওয়ে থানায় নিয়ে গেছে।

পোড়াদহ রেলওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক নজরুল ইসলাম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে জানান, আমরা আজ সকাল ৭টা ৫০ মিনিটের দিকে খবর পাই, হার্ডিঞ্জ ব্রিজের উপর একটি লাশ পাওয়া গেছে। ট্রেনে করে সেখানে ১১টা ১০ মিনিটের দিকে গিয়ে লাশ থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। জাতীয় পরিচয়পত্র ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডি কার্ড দেখে তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। তার মাথা, মুখ ও হাটুতে ক্ষত চিহ্ন আছে। নিহতের পরিবার ও আত্মীয়স্বজনের সাথে কথা হয়েছে। তারা থানায় আসছেন।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনজের আলী জানান, আমরা নিহতের অভিভাবকের সাথে যোগাযোগ করেছি। লাশ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে প্রতিবেদন পেলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এজেড এন বিডি ২৪/ রামিম

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24