সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:৫৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম:
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
রাশিয়ার বোমায় ক্ষতবিক্ষত হয়েও বললেন দেশের জন্য মরতে প্রস্তুত

রাশিয়ার বোমায় ক্ষতবিক্ষত হয়েও বললেন দেশের জন্য মরতে প্রস্তুত

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকঃ পুরো মুখে রক্তের দাগ, চেহারা ‍কিছুটা শুকিয়ে গেছে; যন্ত্রণাবিদ্ধ কিন্তু কঠোর মুখ, চোখের চাহনিতে দৃঢ়তা- এই ছবিই এখন গোটা বিশ্বের সামনে রাশিয়ার আগ্রাসনের মুখ হয়ে উঠেছে।

ঘটনাস্থল যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেন। রক্তমাখা মুখটি দেশটির খারকিভ অঞ্চলের চুগুয়েভ শহরের এক নারী শিক্ষকের। নাম ওলেনা কুরিলো।

গত তিন দিন ধরে রাজধানী কিয়েভ এবং খারকিভ শহরে অনবরত বোমাবর্ষণ, ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে যাচ্ছে রুশ সৈন্যরা। তেমনই একটি বোমা এসে পড়েছিল ৫২ বছর বয়সী এই শিক্ষকের বাড়িতে। বিকট শব্দে চারপাশ কেঁপে উঠেছিল। বোমার অভিঘাতে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়েছিল বাড়িটি। কিন্তু ভাগ্যের জোরে বেঁচে যান কুরিলো। বিস্ফোরণের কাচের একটি বড় টুকরা তার মুখে এসে আঘাত করে। ক্ষতবিক্ষত হয়ে যায় মুখ।

তাকে উদ্ধার করে ইউক্রেনের সৈন্যরা। পরে চিকিৎসা দেওয়া হয় তাকে। মাথায় ব্যান্ডেজ বাঁধা। সারা মুখে রক্তের দাগ। শুকিয়েও গেছেন। মৃত্যুর মুখ থেকে বেঁচে ফিরে তিনি যেন আরও দৃঢ় কঠোর। রাশিয়াকে রুখতে নিজের জীবন দিতেও প্রস্তুত।

ইতিহাসের শিক্ষক কুরিলো। যুদ্ধের অনেক ইতিহাসই তার নখদর্পণে। কিন্তু নিজে সেই যুদ্ধের শিকার হবেন কখনও ভাবতে পারেননি বলেই জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ইউক্রেন আমার জন্মভূমি। আমার মাতৃভূমিকে রক্ষার জন্য যা করতে হয় তাই করব। আনন্দবাজার।

এজেড এন বিডি ২৪/ ডন 

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24