শনিবার, ২৪ Jul ২০২১, ০৯:৪১ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
সর্বশেষ সংবাদ :
‘ভালোবাসা পাঠালাম তোমায়’ লিখে যাকে বার্তা দিলেন নুসরাত! কোরবানি নিয়ে ফেসবুকে বিরূপ মন্তব্য, লালমনিরহাটে প্রধান শিক্ষক আটক ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক শব্দসৈনিক ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক বিয়ে করলেন সানাম সুমি সখিনার প্রেমে অমর হয়ে থাকবেন ফকির আলমগীর খিলগাঁও কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন ফকির আলমগীর মদের দোকানে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের ভিড়, রুখবে কে? অন্য রোগীর প্রেসক্রিপশনে ওষুধ খেলেন জয়নাল কঙ্গোতে নারী ও শিশুসহ নিহত ১৬ বেসামরিক নাগরিক ‘সবচেয়ে কঠোর’ লকডাউনে টাঙ্গাইলের চার বিনোদনকেন্দ্রে হাজারো মানুষ সীমিত পরিসরে ৫ আগস্ট পর্যন্ত চলবে উচ্চ আদালত যৌতুক হিসেবে কচ্ছপ আর কুকুর দাবি যুবকের, অতঃপর… দুই ঘণ্টার ব্যবধানে মা-ছেলের মৃত্যু মসজিদে নামাজের বিষয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নতুন নির্দেশনা
বাবার জন্য তিনটি কবিতা

বাবার জন্য তিনটি কবিতা

সাহিত্য ডেস্ক:

 

ল্যান্ডফোন
জোবায়ের মিলন

অদৃশ্য ল্যান্ডফোনে
কথা হলো, বাবার সাথে। বাবার কথাগুলো
উড়ে বেড়াচ্ছে
ফড়িংয়ের মতো; ধরছি, ছাড়ছি—
আমিও উড়ে বেড়াচ্ছি বাবার ডানায় চড়ে…
একদিন বাবা আমাকে তালুতে নিয়ে এভাবেই
ঘুরে বেড়াতেন—
শেখাতেন, কী করে তালুতে রেখে সাঁতার শেখাতে হয়
নিজের প্রতিচ্ছায়া।—ওই যে আমার ষোলো মাসের কন্যা
সাঁতরাচ্ছে; আমি হাসছি। আর,
মৌনবৃষ্টি ঝরছে মৃত্তিকামণ্ডলে।

****

বাবাকে কখনো কাঁদতে দেখিনি
সালাহ উদ্দিন মাহমুদ

আমি বাবাকে কখনো কাঁদতে দেখিনি—
তবে তার দীর্ঘশ্বাস কান্নার চেয়েও ভারি,
আমি তার চোখে অজস্র স্বপ্ন দেখেছি;
কিন্তু কখনোই তা পূরণ হতে দেখিনি।
আমাদের ভার বয়ে বয়ে নিচু হয়েছেন,
কতদিন খোলা আকাশটাই দেখেননি;
কাল ঠুকতে ঠুকতে শুধু বিষাদ মেখেছেন—
কখনো তার চোখে-মুখে আহ্লাদ দেখিনি।
বাবাকে কখনো ভোগ করতে দেখিনি,
নিজের উপার্জনটুকু সবার মাঝে ভাগ করে
দিতে দিতে শূন্য হাতে ফিরতে দেখেছি;
বিসর্জনের থালা হাতে অপমান হতে দেখেছি।
আমার বাবাকে কখনো কাঁদতে দেখিনি—
বুকে পাথর বেঁধে সব হজম করতে দেখেছি…

****

বাবা
সাজেদুর আবেদীন শান্ত

একদিন বাবা আর আমার বয়স শূন্য
বাবা আর আমার আত্মা এক
বাবা আমার ঘাড়ের ওপর হাত রেখে বললেন, ‘চলো?’
আমি বাবাকে বললাম, ‘কোথায় যাবো?’
বাবা কোনো কথা না বলে আবার আমায় বলেন, ‘চলো!’

আমি বাবার পিছু পিছু হাঁটি
যেতে যেতে সময়ের স্রোত পেরিয়ে চলে যাই
গোরস্তানে—

দাঁড়িয়ে থাকি আনমনে
বাবাকে বলি, ‘বাবা, এখানে কেন?’
বাবা আমাকে উপদেশ দেন;
বলেন, ‘যাপিত সংসার থেকে এই গোরস্তানের প্রয়োজনীয়তা অনেক বেশি।’

মদঘুম ভেঙে আমি উঠে দাঁড়াই
দাঁড়িয়ে দেখি পাশে বাবা নেই
ফোন হাতে নিয়ে বাবাকে ফোন করি—
আমি কিছু বলার আগেই বাবা বলে ওঠেন,
‘কেমন আছো তুমি, আমি বেশ ভালো আছি…’

 

এজেড এন বিডি ২৪/ ডন 

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© 2021, All rights reserved aznewsbd24