বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:২৮ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
সর্বশেষ সংবাদ :
রাজধানীতে ইয়াবা-হেরোইনসহ গ্রেফতার ৫৪ এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু এইচএসসি পরীক্ষায় বসছে ১৪ লাখ শিক্ষার্থী ওমিক্রন পরিস্থিতি খারাপ হলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা: শিক্ষামন্ত্রী ২০২২ সালের এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা বছরের মাঝামাঝি সময়ে: শিক্ষামন্ত্রী ‘খালেদা জিয়ার হিমোগ্লোবিন কমেছে’ সরকার যদি অবৈধই হয় তা হলে দাবি করছেন কেন: ফখরুলকে কাদের আইপিএলকে টেক্কা দিতে আসা টি২০ লিগে দল কিনল ম্যানইউ রাজশাহীতে সড়কে বাবা-ছেলেসহ প্রাণ হারালেন ৩ জন কারাগারে এইচএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে জালিস মাহমুদ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের মানসিকতার উন্নতি করতে চান সাকিব ভিক্ষুকের মত নির্লজ্জ ভাবে পায়ে ধরে শুধুই শেয়ার টা ভিক্ষা চাচ্ছি আমিনবাজারে ছয় ছাত্র হত্যায় ১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ: ভারতকে টপকে গেল পাকিস্তান খাগড়াছড়িতে জাতীয় পতাকা প্রদক্ষিণ শোভাযাত্রা
শেষ ওভারের নাটকীয়তায় দক্ষিণ আফ্রিকার জয়

শেষ ওভারের নাটকীয়তায় দক্ষিণ আফ্রিকার জয়

স্পোর্টস ডেস্কঃ  সপ্তম টি-২০ বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে নিজেদের দ্বিতীয় জয়ের লক্ষ্যে মাঠে নেমেছিল শ্রীলংকা ও দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচে ৪ উইকেটে জয় পেয়েছে প্রোটিয়ারা।

আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারের শেষ বলে অল আউট হওয়ার আগে ১৪২ রান সংগ্রহ করেছিল শ্রীলংকা। জবাবে ১ বল হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছায় টেম্বা বাভুমার দল।

শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে রান তাড়া করতে নামেন কুইন্টন ডি কক ও রেজা হেন্ড্রিকস। পাওয়ার প্লের মাঝে দুজনকেই ফেরান দুশমন্থ চামিরা। ডি কক ১২ ও হেন্ড্রিকস ফেরেন ১১ রানে।

দ্রুত ২ উইকেট পতনের পর টেম্বা বাভুমা ও রাসি ফন ডার ডুসেন মিলে ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করেন। দলীয় ৪৯ রানের মাথায় রান আউট হন ডুসেন। এরপর এইডেন মার্করামকে নিয়ে ৪৭ রানের বড় জুটি গড়েন বাভুমা।

ওয়ানিনু হাসারাঙ্গার বলে বোল্ড হওয়ার আগে ১৯ রান করেন মার্করাম। শেষ দিকে দলকে একাই টেনে নিতে থাকেন বাভুমা। তার ব্যাটে জয়ের আশা দেখছিল প্রোটিয়ারা। কিন্তু আবারো দৃশ্যপটে হাসারাঙ্গার আবির্ভাব। তার হ্যাতট্রিকে ব্যাকফুটে চলে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

নিজের শেষ ওভারের প্রথম বলেই ৪৬ রান করা বাভুমাকে ফেরান হাসারাঙ্গা। আগের ওভারের শেষ বলে মার্করামকে আউট করেছিলেন তিনি। হ্যাটট্রিক বলে ভানুকা রাজাপাকসের তালুবন্দী হন ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস। সঙ্গে সঙ্গে বাঁধনছাড়া আনন্দে মাতেন হাসারাঙ্গা। ম্যাচও ঝুঁকে পড়ে শ্রীলংকার দিকে।

শেষ ২ ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রয়োজন ছিল ২৫ রান। শেষ ওভারে যা গিয়ে দাঁড়ায় ১৫ রানে। লাহিরু কুমারার করা ওভারটিতে দ্বিতীয় ও তৃতীয় বলে ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ নিজেদের করে নেন ডেভিড মিলার। পঞ্চম বলে চার হাঁকিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করেন রাবাদা।

মিলার ২৩ ও রাবাদা ১৩ রানে অপরাজিত থাকেন। শ্রীলংকার হয়ে হাসারাঙ্গা তিনটি ও চামিরা দুই উইকেট নেন।

এর আগে টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা। ব্যাট হাতে শুরুতেই ফেরেন কুশল পেরেরা। এরপর ৪১ রানের জুটি গড়েন নিশাঙ্কা ও চারিথ আসালাঙ্কা।

ব্যক্তিগত ২১ রানে আসালাঙ্কা ফেরার পর আচমকা ব্যাটিং ধসে পড়ে শ্রীলংকা। এরপর দাসুন শানাকা ছাড়া আর কেউই ২ অঙ্কের ঘরে রান করতে পারেননি। লংকান অধিনায়ক করেন ১১ রান।

অন্য ব্যাটারদের ব্যর্থতার মাঝে একাই লড়াই করেছেন নিশাঙ্কা। ৫৮ বলে ৭২ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন তিনি। শেষ ১১ বলে ৪ উইকেট হারিয়ে অল আউট হয় লংকানরা।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে এ ম্যাচে তিনটি করে উইকেট নিয়েছেন তাবরাইজ শামসি ও ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস। এছাড়া দুই উইকেট নেন আনরিখ নর্টজে।

এজেড এন বিডি ২৪/হাসান

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© 2021, All rights reserved aznewsbd24
x