রবিবার, ০৩ Jul ২০২২, ০২:৫৯ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
সর্বশেষ সংবাদ :
ফেরিতে ভয়ঙ্কর জার্নি, অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা করোনায় আরও ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৮৯৭ ফ্ল্যাট না পেয়ে স্বামীকে ইয়াবায় ফাঁসাতে গিয়ে উল্টো ফাঁসলেন স্ত্রী ‘বাড়ির কারোর মুখে তেমন খুশির ছিটেফোঁটাও দেখতে পাইনি’ বিচারপতি নিজেই চাইলেন বিচার গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা সময়োপযোগী ও সাহসী : টিক্যাব গুগল অ্যাপলের অ্যাপস্টোর থেকে টিকটক সরিয়ে নেওয়ার সুপারিশ নদীতে পড়ে যাওয়া আইফোন ১০ মাস পরও সচল! গ্রেভি বিফ চিলি তৈরির রেসিপি মাহির বডি ফিটনেস নেই, বয়স হয়েছে: আজিজ শাকিবের ৪ কোটি টাকার সিনেমায় নায়িকা পূজা ময়মনসিংহের তুফানের দাম ১৭ লাখ টাকা শিক্ষক উৎপল হত্যা : সর্বোচ্চ নিরাপত্তায় খুলছে স্কুল ছুটির দিনে পদ্মা সেতুতে চলছে ছবি-সেলফি উৎসব
রাতে চিড়িয়াখানার ভেতরে রহস্যময় প্রাণী, সাহায্য চাইছে কর্তৃপক্ষ

রাতে চিড়িয়াখানার ভেতরে রহস্যময় প্রাণী, সাহায্য চাইছে কর্তৃপক্ষ

অনলাইন ডেস্কঃ যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের আমারিলো চিড়িয়াখানার ভেতরে রাতের বেলা রহস্যময় এক প্রাণীর দেখা মেলেছে। এরপর কর্তৃপক্ষ শহরবাসীর কাছে ওই প্রাণীর পরিচয় সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গত ২১ মে রাত ১:২৫ মিনিটের দিকে এই রহস্যময় প্রাণীটির দেখা মেলে। এরপর থেকে সেটি ‘আনআইডেন্টিফায়েড আমারিলো অবজেক্ট’ হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। খবর নিউইয়র্ক পোস্ট।

টেক্সাসের ‘সিটি অব আমারিলো’ টুইটারে ওই ছবি পোস্ট করে। ক্যাপশনে লেখা হয়, আমারিলো চিড়িয়াখানায় এক অদ্ভুত প্রাণীর ছবি ধরা পড়েছে। গত ২১ মে রাত প্রায় ১টা ২৫ নাগাদ প্রাণীটি ওখানে দাঁড়িয়েছিল। এটা কি কোনো আগন্তুক, যিনি রাতের বেলায় হাঁটতে বেরিয়েছিলেন? নাকি এটা একটা চুপাক্যাবড়া?

প্রসঙ্গত, লাতিন আমেরিকার জনপ্রিয় কিংবদন্তী চুপাক্যাবড়া হল নেকড়ে-মানুষের আদলেরই একটি কাল্পনিক প্রাণী। দানবীয় এই প্রাণী অন্য প্রাণীদের আক্রমণ করে এবং তাদের রক্ত খায়। নামটি স্প্যানিশ শব্দ চুপার (চুষতে) এবং ক্যাবড়া (ছাগল) থেকে নেওয়া হয়েছে। চুপাক্যাবড়াকে তাই বলা যেতে পারে ‘ছাগল-চোষা’।

ছায়াময় ওই প্রাণীটি যে কি তা আসলে শনাক্ত করা যায়নি। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে এই রহস্যের সমাধান চেয়ে জানিয়েছে, এটি কি একটি অদ্ভুত টুপিওয়ালা ব্যক্তি ছিল যে রাতে হাঁটতে পছন্দ করে? তার পিছনের পায়ে একটি বড় কোয়োট? একটি চুপাকাবড়্যা? এটা আমারিলোর একটা রহস্য- যা সমাধানে সাহায্য দরকার।

এজেড এন বিডি ২৪/ রেজা

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24
x