বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০৪:২৯ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
সর্বশেষ সংবাদ :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় কলেজছাত্র নিহত, আটক ৪ সঙ্গী পেল সাফারি পার্কের সাম্বার হরিণ মেহেরপুরে মাদক ব্যবসায়ীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বদরুন্নেসার শিক্ষিকা রুমা রিমান্ডে বিশ্বকাপ জেতার দৌড়ে ভারতকে এগিয়ে রাখছেন ইনজামাম শুরুতেই ফিরলেন নাইম মুস্তাফিজের যে রেকর্ড ভাঙলেন আইরিশ পেসার অ্যাডায়ার টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ নতুন সোশ্যাল মিডিয়া চালুর ঘোষণা ট্রাম্পের মাত্র এক বছরের এই শিশুর উপার্জন প্রায় ৮৬ হাজার টাকা সন্তানকে ডুবতে দেখে ঝাঁপ দিলেন মা, বাঁচল না কেউই কাচের বোতলে পানি খেলে হতে পারে ভয়ংকর রোগ ক্ষমতায় যেতে ফের পাকিস্তানের দ্বারস্থ বিএনপি সিরিয়ায় ১৪ নিহত সেনার প্রতিশোধ নিতে ১২ জনকে হত্যা বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে ক্লাস শুরু
ভিসা চালুর দাবিতে আন্দোলনে চীনে পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা

ভিসা চালুর দাবিতে আন্দোলনে চীনে পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা

অনলাইন ডেস্কঃ চীনে পড়ুয়া ছয় হাজার শিক্ষার্থী করোনাভাইরাসের কারণে বাংলাদেশে ছুটিতে এসে আটকা পড়েছেন। ভ্যাকসিন নিলেও তারা বিশ্ববিদ্যালয়ে ফেরত যেতে পারছেন না। দ্রুত ভিসা চালু করার দাবিতে লাগাতর আন্দোলনে নেমেছেন শিক্ষার্থীরা। রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সহস্রাধিক শিক্ষার্থী আন্দোলন যুক্ত হয়েছেন। সুনির্দিষ্ট ঘোষণা না এলে আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলেও জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা।

শিক্ষার্থীরা জানান, চীনের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি ছয় হাজার শিক্ষার্থী করোনার কারণে দেশে ছুটিতে আসেন। তারা প্রায় দুই বছর ধরে বাংলাদেশে অবস্থান করলেও এখনো চীনে ফেরত যেতে পারছেন না। তাদের তিন বছরের কোর্সের মধ্যে দুই বছর অতিবাহিত হতে চলছে। আটকা পড়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৮০ শতাংশ মেডিকেল ও ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে পড়ালেখা করছেন। অনলাইন ক্লাস করে তাদের কোর্স শেষ করা সম্ভব হচ্ছে না। প্র্যাকটিক্যাল ক্লাস জরুরি হয়ে পড়লেও এখনো তারা বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে ভিসা পাচ্ছেন না।

তারা বলেন, চীনের শর্ত অনুযায়ী আমরা দুই ডোজ করোনা ভ্যাকসিন নিলেও ভিসা দেওয়া হচ্ছে না। বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে প্র্যাকটিক্যাল ক্লাস করতে না পারায় আমরা অনেক পিছিয়ে পড়ছি। বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে পরবর্তী সেমিস্টার করতে না পড়ালে আমাদের পড়ালেখা ও ক্যারিয়ার ঝুঁকির মধ্যে পড়বে।

আন্দোলনের মডারেটর তানভির আহমেদ রোহেদ  বলেন, চীনের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃত্তি নিয়ে কেউ মাস্টার্স এবং পিএইচডি কোর্সে গবেষণার কাজে যুক্ত রয়েছেন। চীনে যেতে না পারায় বর্তমানে তাদের বৃত্তির ভাতা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অর্থনৈতিক সমস্যার মধ্যে দিন পার করছেন। সমস্যার কথা উল্লেখ করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ছয় দফায় আবেদন জানালেও তারা কোনো ধরণের পদক্ষেপ নেয়নি। তারা আমাদের বিষয়ে উদাসীন আচরণ করছেন।

তিনি বলেন, পার্শবর্তী দেশ পাকিস্তানের শিক্ষার্থীরা এক মাস আগে চীনে চলে গেলেও আমাদের ভিসা দেওয়া হচ্ছে না। দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ায় আমরা ঘর ছেড়ে রাজপথে এসে আন্দোলনে নামতে বাধ্য হয়েছি। সুনির্দিষ্ট ঘোষণা ছাড়া আন্দোলন ছেড়ে বাড়ি ফিরবেন না বলেও ঘোষণা দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা।

এজেড এন বিডি ২৪/হাসান

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© 2021, All rights reserved aznewsbd24
x