সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৭:১৩ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
সর্বশেষ সংবাদ :
মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্বের বাধ্যবাধকতা তুলে নিল সৌদি নুসরাতের মামলা: অসংলগ্ন অনুমান আর কল্পনা মানুষের জীবনের থেকেও কি ধর্ম বড়, প্রশ্ন শ্রীলেখার স্ত্রীকে রেখে দশম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করলেন শিক্ষক হাতির পিঠে চড়ে মনোনয়ন জমা সনাতন ধর্মাবলম্বীর সৎকারে এগিয়ে এলো মুসলিমরা আবারও বাড়ছে ভোজ্যতেলের দাম বগুড়ার অপু বিশ্বাস যেভাবে সিনেমার নায়িকা হলেন শহীদ শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন আজ স্কটল্যান্ডের কাছে হেরে বিশ্বকাপ শুরু বাংলাদেশের বাংলাদেশের সামনে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুঁড়ে দিল স্কটল্যান্ড মালিঙ্গাকে পেছনে ফেলে বিশ্ব রেকর্ড সাকিবের কাপাসিয়ায় ১১ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী ৫০ জন লক্ষ্মীপুরে ৪ ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ২৮ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল বাংলাদেশের দাপুটে বোলিংয়ে কোণঠাসা স্কটল্যান্ড
নারীর পিৎজা খাওয়া, পুরুষের চা পরিবেশনের দৃশ্য নিষিদ্ধ করলো ইরান

নারীর পিৎজা খাওয়া, পুরুষের চা পরিবেশনের দৃশ্য নিষিদ্ধ করলো ইরান

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ পিৎজা খাচ্ছেন কোনো নারী কিংবা কোনো পুরুষ চা পরিবেশন করছেন মহিলাদের টেলিভিশনের কোনও শো কিংবা কোনো ফিল্মে যদি এই দৃশ্য দেখা যায়, তা হলে ততক্ষণাৎ সেটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হবে।

রসিকতা নয়! সত্যিই এই সেন্সরশিপ জারি করেছে ইরান সরকার। টেলিভিশনের অনুষ্ঠান নির্মাতা ও চিত্রপরিচালকদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে এ বিষয়ে। নতুন নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, অফিসে কোনো নারীকে চা পরিবেশন করছেন কোনো পুরুষ অথবা নারীদের হাতে চামড়ার গ্লাভস, এসব দৃশ্যও সম্প্রচার করা যাবে না।

ইরানওয়্যারের তথ্য বলছে, দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা সম্প্রতি পরিদর্শন শেষে একটি গাইডলাইন ইস্যু করেছেন ব্রডকাস্ট চ্যানেল ও সিনেমা নির্মাতাদের জন্য।

এই ওয়েবসাইটটি আরো জানিয়েছে, ইসলামিক প্রজাতন্ত্র ইরানের সম্প্রচার বিভাগের প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা আমির হোসেন শামশাদি বলেন, টেলিভিশন কিংবা বা সিনেমার পর্দায় কোনো নারীর লাল রঙের পানীয় পান করা দেখানো যাবে না। এমনকি স্যান্ডউইচ খাওয়ার দৃশ্যও নিষিদ্ধ পর্দায়।

যে কোনো ঘরোয়া দৃশ্য দেখাতেও নারাজ দেশটির সরকার। সম্প্রচারের আগে তা কর্তৃপক্ষকে দেখাতে হবে, এরপর তারা সিদ্ধান্ত দেবেন। এমন কড়া নিয়ম জারির ফলে এবং নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি এড়াতে অনেক প্রতিষ্ঠান সেলফ সেন্সরশিপে চলে গেছে।

সিনেমাপ্রেমিরা বলছেন, বিশ্বজুড়ে বাস্তববাদি চলচ্চিত্র নির্মাণের ক্ষেত্রে অনেক উন্নত অবস্থান ধরে রেখেছে ইরান। এখন তা ম্লান হতে চলেছে। নতুন করে কড়া নিয়ম জারি, দেশটির শিল্পকলা বিকাশের জন্য মোটেও সুখকর নয়।

এজেড এন বিডি ২৪/হাসান

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© 2021, All rights reserved aznewsbd24
x