শুক্রবার, ২৬ নভেম্বর ২০২১, ০৯:৫৪ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
সর্বশেষ সংবাদ :
করোনায় প্রাণ হারালেন আরও ৪ জন সেই বিচারকের ভুল ছবি দিয়ে তসলিমার টুইট সিডরে ভেসে যাওয়া সেই রিয়া এখন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী বিশ্বকাপে কোন দল কত টাকা পেল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কতটি ছক্কা হাঁকিয়েছেন ছক্কার রাজা পরিবহণ ধর্মঘট বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডাকা বৈঠক হঠাৎ স্থগিত আফগানরা না জিতলে কী করবে ভারত, জানালেন জাদেজা শেষ দুই বলের ছক্কায় উইন্ডিজের সংগ্রহ ১৫৭ বিদায় ইউনিভার্স বস মোশাররফ করিমের সঙ্গী হচ্ছেন পার্নো মিত্র ‘জীবনটা কফির মতো’ দাবি না মানলে ধর্মঘট চলবে চট্টগ্রামে পরিবহণ ধর্মঘট প্রত্যাহার পুরো কুরআনের ক্যালিগ্রাফি এঁকে প্রশংসায় ভাসছেন তরুণী দুবাইয়ে বাংলাদেশের পতাকার ফেরিওয়ালা তিনি
ডায়াবেটিস রোগী কী পান করবেন?

ডায়াবেটিস রোগী কী পান করবেন?

স্বাস্থ্য ডেস্কঃ ডায়াবেটিসের জটিলতা বলে শেষ করা যাবে না। এই দীর্ঘমেয়াদি রোগটি হলে রক্তে শর্করার মাত্রা বেশি থাকে এবং বিভিন্ন ধরনের শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়।

তবে ডায়াবেটিস হলে তা নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে ভালো থাকা যায়। এর জন্য স্বাস্থ্যকর খাবার ও নিয়মতান্ত্রিক জীবনযাপন অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ওহাইও স্টেট ইউনিভার্সিটি ওয়েক্সনার মেডিকেল সেন্টারের এন্ডোক্রিনোলজিস্ট ডা. ক্যাথলিন ওয়াইন এ বিষয়ে বলেছেন, ডায়াবেটিস হওয়ার অর্থ হচ্ছে— আপনাকে একটি স্বাস্থ্যকর, সুষম খাদ্য খাওয়ার চেষ্টা করতে হবে। যদি আপনি না করেন, তা হলে ডায়বেটিসের ওষুধগুলো যেমন কাজ করার কথা, তেমন কাজ করে না এবং এ কারণে আপনার আরও ওষুধ বৃদ্ধির প্রয়োজন হতে পারে।

ডায়বেটিস হলে চিকিৎসকেরা পরামর্শ দেন, কম খেতে, ফাস্ট ফুড এড়াতে, নিয়ন্ত্রিত খাবার, খাবারে ফ্যাট কম রাখা, প্রোটিন নিয়ন্ত্রন ও লবন কম খাওয়ার।

এছাড়া অনেক ডায়বেটিস রোগীর মনে প্রশ্ন—ডায়াবেটি হলে কী খাওয়া যাবে, কী পান করা যাবে। তাই আজকে আপনার জন্য থাকছে এমন কিছু পানীয় যেগুলো আপনি ডায়বেটিস রোগী হলেও পান করতে পারবেন—

১. মিষ্টি ছাড়া হারবাল চা
চিনি না মিশিয়ে যেকোনো ধরনের হারবাল চা আপনার জন্য উপকারী হতে পারে। এটি আপনার শরীরকে হাইড্রেট করতে সহায়তা করবে। এ জন্য আপনি গ্রিন টি, আদা চা, তুলসি চা ইত্যাদি পান করতে পারেন।

২. শরবত পানি
পুদিনা পাতা, বেরি জাতীয় ফল, শসা, আদা ইত্যাদি বিভিন্ন ধরনের উপাদান পানির সঙ্গে ব্লেন্ড করে পান করতে পারেন। এটি আপনার ডায়বেটিসে উপকারী হিসেবে কাজ করবে এবং এগুলোতে ক্যালোরিও কম থাকে। নিবন্ধিত ডায়াটেশিয়ান উইজেনবার্গার বলেছেন, ডায়বেটিসে উপকার পেতে আদা পানি ব্যবহার করা যেতে পারে।

৩. চিনি ছাড়া ব্লাক কফি
আপনি ডায়বেটিসেও চিনি ছাড়া ব্ল্যাক কফি পান করতে পারেন। এতে থাকা ক্যাফেইন আপনাকে চাঙ্গা রাখবে এবং আপনার শরীরকে হাইড্রেট করতে ও সহায়তা করবে। তবে অবশ্যই এটি হতে পবে পরিমিত।

৪. ফলের জুস
প্রাকৃতিকভাবে তৈরি যেকোনো ফলের জুস আপনি খেতে পারবেন। তবে এতে কোনো চিনি মেশানো যাব না। ফলে থাকা প্রাকৃতিক শর্করা বাইরের শর্করার চেয়ে ভালো। তাই যেকোনো ধরনের প্রাকৃতিক ফলের জুস আপনি ডায়বেটিসেও ফান করতে পারেন।

৫. স্যুপ
স্যুপে প্রচুর পরিমাণে পানি থাকে এবং এটি পুষ্টিকর ও সুস্বাদুও। পাতলা করে করা করা চিকেন স্যুপ বা সবজি স্যুপ আপনার ডায়বেটিস থাকলেও উপকারী হবে। এটিকে ডায়বেটিস রোগীরা খাবারের বিকল্প হিসেবেও বেছে নিতে পারেন।

৬. টমেটো জুস
ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য টমেটো জুস উপকারী হতে পরে। এ বিষয়ে ওয়েইজেনবার্গার বলেন, টমেটোর জুস পুষ্টিগুণে ভরপুর, আর এতে কার্বোহাইড্রেট বা ক্যালোরিও কম থাকে এবং এটি দ্রুত ক্ষুধা কমায়। তাই এটি আপনি খেতে পারেন ডায়াবেটিসেও।

তথ্যসূত্র: ইউএস নিউজ ডটকম

এজেড এন বিডি ২৪/হাসান

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© 2021, All rights reserved aznewsbd24
x