শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০১:০৬ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
সর্বশেষ সংবাদ :
২০ বছর পর আবারও বেন অ্যাফ্লেক-জেনিফার লোপেজের বাগদান রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় শেষ নেই চাঁদাবাজির তবুও ‘বদলি’ খেলোয়াড় তাইজুল! সাকিব আল হাসানের শাশুড়ি আর নেই অভিযুক্তকে আজীবন নিষিদ্ধের দাবি, চাহালকাণ্ডে ক্ষোভে ফুঁসছেন শাস্ত্রী টেকনাফে পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ১ ‘ভারতকে বেশি ভালোবাসলে, সেখানে চলে যান’, ইমরানকে মরিয়াম ভাগ্য নির্ধারণী অধিবেশনে অনুপস্থিত ইমরান খান বহ্নি চরিত্রে মিথিলার লুক খুলনায় ট্যাংকলরি শ্রমিকদের কর্মবিরতি সাময়িক স্থগিত ‘প্রেমের প্রস্তাবে’ রাজি না হওয়ায় ওসির মেয়েকে মারধর, মামলা দায়ের ডা. বুলবুল হত্যাকাণ্ড; চার পেশাদার ছিনতাইকারী গ্রেফতার মেয়েদের নিয়ে স্কুল থেকে ফেরা হলো না সাবিনার ‘রাজকুমার’ শাকিবের নায়িকা হচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের কোর্টনি নিয়ম তো সবার জন্য এক মামা, ঋতুপর্ণাকে খোঁচা শ্রীলেখার?
জানালার ফাঁক দিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীর পোশাক বদলের ভিডিওধারণ

জানালার ফাঁক দিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীর পোশাক বদলের ভিডিওধারণ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ  পর্নোগ্রাফি মামলায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে দোহার থানার পুলিশ। তারা হলেন মো. আব্দুস সালাম (৩৫) ও মাসুদ রানা (৩২)। তারা দোহারের লটাখোলা বিলেরপাড় এলাকায় গোপনে গৃহবধূর পোশাক বদলের ভিডিওধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিল।

পুলিশ জানায়, লটাখোলা বিলেরপাড় এলাকায় গত ২৭ মে রাতে এক দুবাই প্রবাসীর স্ত্রী (নাম গোপন রাখা হলো) ঘরে পোশাক পরিবর্তন করার সময় জানালার ফাঁক দিয়ে ভিডিওধারণ করে একই এলাকার সালাম, মাসুদ রানা, কাউছারসহ আরও দু-তিনজন। এরপর ২৯ মে বিকেলে তারা ওই গৃহবধূর বাসায় গিয়ে নগ্ন ভিডিও ও ছবি প্রদর্শন করে। এসময় তারা ইন্টারনেটের মাধ্যমে ভাইরাল করে দেবে বলে ভয়ভীতি দেখিয়ে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। সম্ভ্রম বাঁচাতে ওই গৃহবধূ ঘরে থাকা ২০ হাজার টাকা তাদের দেয়।

উপায় না পেয়ে তিনি বিষয়টি দোহার থানায় তিনজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত দু-তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। এরপর দোহার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন গৃহবধূকে চাঁদা দেয়ার জন্য রাজি হতে বলে ফাঁদ পাতেন।  সেই ফাঁদে ধরা খায় আসামিরা।

গত ১৪ জুন সন্ধ্যা ৭টার দিকে পুনরায় তারা ওই গৃহবধূর বাড়িতে গিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদা দাবি করলে স্থানীয়দের সহায়তায় পুলিশ দুজনকে হাতে নাতে ধরে। এ বিষয়ে সাজ্জাদ হোসেন সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তাদের কাছ থেকে ওই নারীর ভিডিওসহ মোবাইল উদ্ধার করে সোমবার জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

এজেড এন বিডি ২৪/ রামিম

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© 2021, All rights reserved aznewsbd24
x