বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৪৭ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। সারাবিশ্বের সর্বশেষ সংবাদ পড়তে আমাদের ওয়েব সাইট নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমার ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিয়ে ফলো অপশনে সি-ফাষ্ট করে সঙ্গেই থাকুন। আপনার প্রতিষ্ঠানের প্রচারে স্বল্পমূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- aznewsroom24@gmail.com ধন্যবাদ।
সর্বশেষ সংবাদ :
জামিন পেলেন সেই চিত্ত রঞ্জন দাস পুলিশের ওপর ক্ষুদ্ধ হয়ে রাজধানীতে ফের নিজের মোটরসাইকেলে আগুন সাড়ে ১৮ হাজারে বিক্রি হলো সাড়ে ১৫ কেজির বোয়াল সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের এমডি হলেন সুভাষ চন্দ্র বাদল ইকবালকে পাগল দাবি করে যা বলছে তার পরিবার সুযোগ হাতছাড়া সাকিবের ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী জাতির শত্রু’ সাজঘরে ফিরলেন সাকিবও পুলিশ সুপারের দায়িত্বে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী মাহিরা জোর করে বিয়ে দেওয়ায় বরের মামলায় কনেসহ ৯ জন জেলে ৫০ রানের জুটি গড়ে ফিরলেন লিটন লিটনের পর ফিরলেন মুশফিক এবার ফরিদপুর ও বরিশালে পদ্মাপূরাণ, থাকছে ঢাকায়ও যে নামে হতে পারে কুমিল্লা ও ফরিদপুর বিভাগ চুল পড়া বন্ধের দুর্দান্ত উপায়
অন্তঃসত্ত্বা আফগান নারী পুলিশ সদস্যকে হত্যার অভিযোগ নিয়ে যা বলল তালেবান

অন্তঃসত্ত্বা আফগান নারী পুলিশ সদস্যকে হত্যার অভিযোগ নিয়ে যা বলল তালেবান

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ অন্তঃসত্ত্বা আফগান নারী পুলিশ সদস্যকে হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে নিজেদের সংশ্লিষ্টতার কথা অস্বীকার করেছে তালেবান। এ ব্যাপারে তালেবানের মুখপাত্র জাহিবুল্লাহ মুজাহিদ জানান, “আমরা ঘটনাটি সম্পর্কে অবগত আছি। আমি নিশ্চিত যে তালেবান তাকে হত্যা করেনি। এ ব্যাপারে আমাদের তদন্ত চলছে।”

তিনি আরও জানান, “বিগত সরকারের অধীনে কাজ করা সবার জন্য সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছে তালেবান। তাদের ধারণা ওই নারীকে কোনও ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরে হত্যা করা হয়েছে।” উল্লেখ্য, তিন সশস্ত্র ব্যক্তি আফগানিস্তানের একজন নারী পুলিশকে তার নিজ বাসভবনে পরিবারের সদস্যদের সামনে গুলি করে হত্যা করে। তার নাম বানু নিগার। আফগানিস্তানের ‘মধ্য ঘোর’ প্রদেশের রাজধানী ফিরুজকুহতে শনিবার এ ঘটনা ঘটে। সশস্ত্র ব্যক্তিরা তালেবান সদস্য বলে অভিযোগ উঠেছে।

বানু নিগারের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, তালেবানের স্থানীয় নেতৃত্ব এই হত্যাকাণ্ডে নিজেদের সংশ্লিষ্টতা অস্বীকার করে এ ব্যাপারে তদন্তের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

তারা আরও জানিয়েছেন, নিহত পুলিশ সদস্য কারাগারে দায়িত্ব পালন করতেন এবং হত্যাকাণ্ডের সময় তিনি আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, তিনজন বন্দুকধারী ব্যক্তি ওই নারী পুলিশ সদস্যের বাড়িতে তল্লাশি চালায়। এরপর পরিবারের সদস্যদের হাত-পা বেঁধে তাদের সামনেই বানু নিগারকে গুলি করা হয়। একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, হামলাকারীদের আরবিতে কথা বলতে শোনা গেছে।

এজেড এন বিডি ২৪/ তমা

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© 2021, All rights reserved aznewsbd24
x